বাংলাদেশ সহ সারা বিশ্বে নারীদেহে ঘটিত ক্যান্সার সমূহের মধ্যে স্তন ক্যান্সার ১ম* প্রধান ক্যান্সার। বিশ্বে প্রায় প্রতি ৪ জন ক্যান্সার রোগীর মধ্যে ১ জন এই ক্যান্সারে আক্রান্ত হন। তবে আশার কথা এই যে, প্রাথমিক অবস্থায় রোগ নির্ণয় ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসা প্রদান সম্ভব হলে প্রায় ৯৯% ক্ষেত্রে রোগ নিরাময় সম্ভব যা কিনা এ্যাডভান্স স্টেজ (Advance Stage) এর রোগীর ক্ষেত্রে ২৭% এ নেমে আসে।**


মানব দেহের সকল ক্যান্সার প্রাথমিক পর্যায়ে নির্ণয় করা কঠিন হলেও স্তন ক্যান্সার প্রাথমিক অবস্থায় সনাক্তকরণের সম্ভাবনা অনেকাংশেই বেশী থাকে। কেবল প্রয়োজন সঠিক ধারনা ও সচেতনতা। নিয়মিত নিজে স্তন পরীক্ষার (BSE) মাধ্যমে আপনিই পারেন প্রাথমিক পর্যায়ে এ রোগটি সনাক্ত করতে।


ব্রেস্ট সেলফ এক্সামিনেশন (Breast Self-Examination)

নিজে নিজের স্তন পরীক্ষা করার পদ্ধতিকে ব্রেস্ট সেলফ এক্সামিনেশন বলে।


কোন বয়স থেকে BSE করা উচিৎ?

২০ এবং তদুর্ধ্ব বয়সের সকল মহিলাদের নিয়মিত BSE করা প্রয়োজন।


কোন সময় BSE করা উচিৎ?

সাধারণত ঋতুস্রাব বন্ধের পরবর্তি সপ্তাহে প্রতিমাসের একটি নির্ধারিত দিনে BSE করা উচিৎ। যাদের মাসিক বন্ধ হয়ে গেছে অথবা গর্ভকালীন সময়ে একইভাবে মাসের একটি নির্ধারিত দিনে BSE করা যেতে পারে।


BSE করার সময় নিন্মোক্ত পরিবর্তনগুলোর দিকে লক্ষ্য করুন

  • স্তনে বা বগলে চাকা দৃশ্যমান হওয়া (thick mass)
  • স্তনের ত্বকে / চামড়ায় পরিবর্তন
    • খাঁজ পড়া (indentation)
    • ক্ষয় হওয়া (erosion)
    •  লাল হয়ে যাওয়া বা গরম অনুভব করা (redness or heat)
    • স্তনের ত্বক কমলালেবুর খোসার মত পুরু হয়ে যাওয়া (orange peel skin)
    •  টোল পড়া বা ছোট ছোট গর্ত দেখা দেওয়া (dimpling)
    •  বাড়তি অংশ বের হওয়া (bump)
    •  শিরা উপশিরা ফুলে যাওয়া (growing vein)
  • স্তনবৃন্তের (Nipple) পরিবর্তন
    • স্তনবৃন্ত ডেবে যাওয়া (retracted nipple)
    • কোন কারণ ব্যতীত স্তনবৃন্ত থেকে তরল রক্ত বা পুঁজ বের হওয়া (new fluid)
  • স্তনের আকার/আকৃতির অস্বাভাবিক পরিবর্তন (unusual changes in shape/size)
  • স্তনের ভিতরে অদৃশ্যমান চাকা অনুভব করা (invisible lump)

  • Symptoms of Breast Cancer

    কোন অংশটুকু পরীক্ষা করব?

    Area to Check for BSE.png

    ছবিতে দৃশ্যমান পুরো জায়গা জুড়ে BSE করা উচিত। (Area starts from the collarbone to the sternum and then to the last rib of the chest cage)



    BSE করার পদ্ধতি

    3 Fingers for BSE.png

    মনে রাখবেন, BSE করার সময় ছবিতে নির্দেশিত এই ৩টি আঙ্গুলের চিহ্নিত অংশের মাধ্যমে আপনার স্তনের অস্বাভাবিকতা নির্ণয় করা জরুরী।


    BSE ধাপসমূহ

    ১ম ধাপঃ খেয়াল করুন

    BSE Steps _ 1.png

    স্তনের স্বাভাবিক অবস্থার কোন পরিবর্তন আছে কিনা লক্ষ করুন এবং উল্লেখিত ধাপ অনুযায়ী বিভিন্ন অবস্থানে (position) আকার-আকৃতির পরিবর্তন খেয়াল করুন।

    ১। হাত কোমরে রাখুন

    ২। হাত দুটি উপরে উঠিয়ে মাথার উপরে নিন

    ৩। কোমরে হাত দুটি একটু জোরে চেপে ধরে সামনের দিকে ঝুঁকে বুকের মাংসপেশী সমূহকে আটসাট করুন

    ৪। নিপ্‌ল আলতোভাবে চেপে দেখুন কোন তরল জাতীয় দ্রব্য নির্গত হয় কিনা




    ২য় ধাপঃ স্পর্শের মাধ্যমে অনুভব করুন

    BSE Steps _ 2.png

    ১। শুয়ে পড়ুন, কাঁধের নীচে একটি বালিশ রাখুন এবং হাতের ২য়, ৩য় ও ৪র্থ আঙ্গুলের মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে আলতোভাবে তারপর মাঝারি ধরনের এবং পরবর্তীতে একটু দৃঢ় চাপের মাধ্যমে স্তনের প্রতিটি অংশ অনুভব করুন।

    ২। স্তনের বাইরের প্রান্ত থেকে বৃত্তাকার গতিতে ঘড়ির কাটার বরাবর অথবা একটি রেখার উপর-নীচ বিবেচনা করে অথবা স্তনের বাইরের প্রান্ত থেকে অনুভব করে ভিতরের স্তনবৃন্তের (Nipple) দিকে এবং Nipple থেকে পুনরায় বাইরের প্রান্ত পর্যন্ত অনুভব করুন


    নিন্মোক্ত ৩টি পদ্ধতিতে BSE সম্পন্ন করুন


    3 Ways (Motions) of BSE

    মনে রাখবেন

    স্তনের যে কোন পরিবর্তনই ক্যান্সার নয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই চাকা/পিন্ড সাধারন হয়ে থাকে।


    সাধারণ চাকা বা বিনাইন (Benign)

    ১| চাকাটি একটি নির্দিষ্ট স্থানে বিদ্যমান থাকে এবং ছড়িয়ে পড়ে না

    ২। শতকরা ৯০ ভাগই ব্যাথাহীন

    ৩। চাকাটির কিনারা সমান কিংবা নিয়মিত

    ৪। চামড়ার সাথে চাকাটির সম্পৃক্ততা অনুপস্থিত

    ৫। স্তনবৃন্ত থেকে রক্ত নয় তবে হলুদ বা সবুজ জাতীয় তরল নির্গত হয়ে থাকে


    ক্ষতিকর চাকা বা ম্যালিগন্যান্ট (Malignant)

    ১। চাকাটির পার্শ্ববর্তী টিস্যুতে ছড়িয়ে পড়ার প্রবণতা অধিক

    ২। সাধারণত ব্যাথাযুক্ত

    ৩। চাকাটির কিনারা বা ধারসমূহ অনিয়মিত

    ৪। চামড়ার সাথে চাকাটির সম্পৃক্ততা বিদ্যমান

    ৫। স্তনবৃন্ত থেকে রক্ত/রক্তজাতীয় তরল নির্গত হয়ে থাকে


    উল্লেখিত পরিবর্তনের কোনটি দেখা দিলে দেরি না করে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের শরনাপন্ন হোন এবং প্রয়োজনীয় চিকিৎসা গ্রহণ করুন।


    কিছু উপদেশ

    • নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রম করুন।
    • ওজন নিয়ন্ত্রনে রাখুন।
    • শিশুকে নিয়মিত বুকের দুধ পান (Breast-feeding) করালে স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে যায়।
    • পারিবারিক ইতিহাস থাকলে আগে থেকে সচেতন হোন এবং BSE করার পাশাপাশি ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন।
    • স্বাস্থ্যকর খাবার গ্রহন করুন এবং মদ্যপান পরিহার করুন।

    ব্রেস্ট সেলফ এক্সামিনেশন কে আপনার নিয়মিত অভ্যাসে পরিনত করুন, কারণ আপনার, আমার, আমাদের সচেতনতাই পারে সঠিক সময়ে স্তনক্যান্সার নির্ণয় করে মৃত্যুর ঝুঁকি কমিয়ে আনতে।



References

* GLOBOCAN 2018

** Breast Cancer: Statistics [Internet; cited 2019, May 23]. Retrieved from https://www.cancer.net/cancer-types/breast-cancer/statistics

- Breast Self-Exam [Internet; cited 2019, May 23]. Retrieved from https://www.breastcancer.org/symptoms/testing/types/self_exam

- Compiled from multiple other valid sources